বাড়িঅনলাইন ডেস্কঅনিশ্চয়তায় জীবন কাটাচ্ছে মেঘনার জেলে পল্লীগুলো।

অনিশ্চয়তায় জীবন কাটাচ্ছে মেঘনার জেলে পল্লীগুলো।

মোঃ মাসুদ আলম ঃ
 মহামারী ভাইরাস করোনার (কোভিট-১৯) প্রভাবে খুব আতঙ্কের মধ্য দিয়ে জীবনযাপন করছে সব শ্রেনী পেশার মানুষ। বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সকল আয়ের পথ। নেই আগের মতো আয় রোজগার। এরই মধ্যে শূন্যের কোঠায় এসে পৌঁছেছে ইলিশের সংখ্যা। ইলিশ শূন্য মেঘনায় সারাদিন জাল পেলেও মিলছেনা কাঙ্ক্ষিত ইলিশ।ফলে অনিশ্চয়তায় জীবন কাটাচ্ছে মেঘনার জেলে পল্লীগুলো।
সরেজমিন ভোলার মেঘনা নদী সংলগ্ন সোনাডগী,বিশ্বরোড,ফেরিঘাট  জেলে পল্লী ঘুরে দেখা যায়, নদীতে কাঙ্খিত ইলিশ না পাওয়ায় কেউ কেউ বাড়িতে বসে অলস সময় কাটাচ্ছেন, কেউ বা বুনছেন জাল।
জেলে পল্লীর জাকির, ইব্রাহিম, রহিম জানান, নদীতে মাছ না থাকায় আমরা অসহায় হয়ে পড়েছি। বিভিন্ন এনজিও থেকে কিস্তি নিয়ে নৌকা জাল কিনেছি। নদীতে মাছ না থাকায় কিস্তি দিতে পারছিনা আমরা। কোথায়ও গিয়ে যে কাজ করবো তাও পারছিনা ভাইরাসের কারনে।
সরকারি বরাদ্দের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তারা বলেন, সরকার আমাদেরকে যে চাউল দেয় তাতে করে ১০ থেকে ১৫ দিন চলে। এতে করে আমরা কিছুটা হলেও উপকৃত হই। তবে চাল শেষ হয়ে গেলে অনিশ্চয়তায় কাটে আমাদের দিন।
বিভিন্ন মাছ ব্যবসায়ীরা বলেন, আমরা জেলেদেরকে দাদন (অগ্রিম টাকা) দিয়ে থাকি। তারা আমাদেরকে মাছ দেয়। কিন্তু নদীতে মাছ কম থাকায় আমাদের ব্যবসায় ধ্বংস নেমেছে।
তবে জেলে পল্লীগুলোতে আবার সরকারি খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান।
পূর্ববর্তী নিবন্ধসরে যাবো
পরবর্তী নিবন্ধবাউফলে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ জন
RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments