অর্থনীতি বাঁচাতে পাকিস্তানে লকডাউন শিথিল

অর্থনীতি বাঁচাতে পাকিস্তানে লকডাউন শিথিল
  • 5
    Shares

করোনা সংক্রমণ ক্রমবর্ধমান হারে বাড়তে থাকলেও লকডাউনের বিধি-নিষেধ শিথিল করে অর্থনীতির চাকা সচল করছে পাকিস্তান। দেশটিতে লকডাউন শিথিল করে শনিবার বিভিন্ন ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান ও শিল্প-কারখানা খুলে দেয়া হয়েছে।

ধাপে ধাপে লকডাউন প্রত্যাহারের অংশ হিসেবে শনিবার পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে দোকান-পাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুনরায় খুলতে শুরু করেছে।

ব্যবসা-বাণিজ্য শুরুর প্রথম ধাপে রয়েছে তৈরি পোশাক, জুতার দোকান এবং ছোট ছোট মার্কেট চালু করা। তবে দেশটির সব শপিংমলের দ্বার বন্ধই থাকছে।

শুক্রবার পাকিস্তানে নতুন করে ২ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এছাড়া এই ভাইরাসে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬০০ জনের বেশি।

দেশটিতে প্রত্যেকদিন যখন করোনায় সংক্রমণ এবং মৃত্যু বাড়ছে তখন গত বৃহস্পতিবার পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান লকডাউন ধাপে ধাপে প্রত্যাহার করে নেয়ার ঘোষণা দেন। দেশটির বিপুল সংখ্যক দরিদ্র জনগোষ্ঠী মানবেতর জীবন-যাপন করছেন উল্লেখ করে লকডাউন প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন তিনি।

একই সঙ্গে লকডাউন শিথিলের পর সরকারের জারিকৃত নতুন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে দেশের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইমরান খান। তিনি বলেছেন, সরকারি বিধি-নিষেধ উপক্ষিত হলে দেশে পুনরায় লকডাউন কার্যকর করা হবে।

এদিকে, করোনার প্রকোপ বাড়লেও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর লকডাউন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে দেশটির ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতারা। তারা বলেছেন, এভাবে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার ভার বহনের সামর্থ্য দেশের নেই। লকডাউন চলতে থাকলে লাখ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়বেন।

বৈশ্বিক করোনা সঙ্কটের কারণে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে বিশাল ধাক্কা নেমে আসায় পাকিস্তানের অর্থনীতি ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি, ডন।