আইসিসির আগেই নিষিদ্ধ করলো ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া!

আইসিসির আগেই নিষিদ্ধ করলো ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া!
  • 3
    Shares

করোনাভাইরাস শেষে ক্রিকেট মাঠে গড়ালে আইসিসি নিয়ম করুক আর না করুক, সবার আগে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড নির্দেশ দিয়ে ফেলেছে, পেসাররা আর কখনো বলের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনা জন্য থুতু কিংবা লালা ব্যবহার করতে পারবে না। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) পক্ষ থেকে এ নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল সরকারের স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মেনেই এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সিএ। একই সঙ্গে এ বিষয়ে একটা ফ্রেমওয়ার্ক প্রকাশ করা হবে বলেও জানিয়েছে তারা।

করোনাভাইরাসের কারণে ক্রিকেটে অবৈধ নিয়মকেই এখন বৈধ করার উদ্যোগ নিয়েছে আইসিসি। বল টেম্পারিংকে কোনো না কোনোভাবে বৈধতা দেয়া যায় কি না সে পর্যালোচনা চলছে আইসিসিতে। এটা পুরনো খবর।

টেস্ট ক্রিকেটে মুখের থুতু কিংবা লালা দিয়ে বলের একপাশ উজ্জ্বল করেন পেসাররা। থুতু কিংবা লালার মাধ্যমে রোগ-জীবানু ছড়াতে পারে, এই শঙ্কা থেকে টেস্ট ক্রিকেটে দীর্ঘদিনের এই অভ্যাসটাকে বন্ধ করে দিতে চায় আইসিসি। পরিবর্তে বিকল্প কোনো পদ্ধতিতে বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানো যায় কি না সে পরিকল্পনা নিয়েই এগুচ্ছে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি।

আম্পায়ারের তত্বাবধানে লাল বলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে কৃত্রিম কিছু ব্যবহার করার অনুমতি দেয়ার বিষয়েই চিন্তা-ভাবনা করছে আইসিসি। ইএপিএন ক্রিকইনফো জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার ইনস্টিটিউট অব স্পোর্টস (এআইএস) বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, স্পোর্টস বডি এবং ফেডারেল ও স্টেট সরকারের প্রতিনিধিদের মতামত নিয়েছে। সেখান থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে একটা গাইডলাইন তৈরি করা হচ্ছে। একই সঙ্গে ক্রিকেট খেলায় বলে থুতু এবং লালা ব্যবহারের ক্ষেত্রে কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারির নির্দেশনাও দেয়া হয়।

যে ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করা হবে করোনা পরবর্তী ক্রিকেটের জন্য। সেখানে তিনটি লেভেল রাখা হবে। লেভেল ‘এ’, লেভেল ‘বি’, লেভেল ‘সি’। থুতু এবং লালা ব্যবাহারের ক্ষেত্রে যে নির্দেশনা জারি করা হচ্ছে, সেটা হচ্ছে লেভেল ‘এ’-এর অন্তর্ভূক্ত।