করোনা টেস্ট করে মাঠে নামলেন মেসি-সুয়ারেজরা

করোনা টেস্ট করে মাঠে নামলেন মেসি-সুয়ারেজরা
  • 1
    Share

করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে যাওয়া স্প্যানিশ লা লিগা পূনরায় শুরু করতে জোর প্রস্তুতি নিচ্ছে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন। আগেই সকরারের গ্রিন সিগন্যাল পেয়ে লা লিগা কর্তৃপক্ষ ক্লাবগুলোকে জানিয়েছে ফুটবলারদের অনুশীলন শুরু করানোর কথা। তবে এ ক্ষেত্রে মেনে চলতে হবে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি।

অনুশীলন শুরুর আগে প্রতিটি ক্লাবের প্রতিটি ফুটবলার এবং কোচিং স্টাফদের করোনা টেস্ট বাধ্যতামূলক। সে হিসেবে বুধবার ট্রেনিং শুরুর আগে করোনা টেস্ট করে এলেন মেসি-সুয়ারেজসহ বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদের ফুটবলাররা। সেখানেই দেখা গেলো মাস্ক পরে, হাতে গ্লাভস লাগিয়ে টেস্ট করতে এলেন লিওনেল মেসি, আন্তোনিও গ্রিজম্যান, ইডেন হ্যাজার্ড, গ্যারেথ বেলরা। ২ মাস ফুটবল থেকে দুরে থাকার পর আবারও কর্মচাঞ্চল্য বাড়ছে স্প্যানিশ লা লিগার ক্লাবগুলোতে।

বুধবার সকাল ৯টায় ক্লাবের প্র্যাকটিস কমপ্লেক্সে পৌঁছার কথা ছিল বার্সেলোনা ফুটবলারদের। ক্লাবের নির্দেশমতো ট্রেনিং কমপ্লেক্সে প্রথমে হাজির হন সার্জি রবার্তো এবং ইভান রাকিটিচ। স্বাস্থ্যপরীক্ষার পর সবার প্রথমে ক্লাব ছাড়েন এই দু’ই ফুটবলার। অধিকাংশ ফুটবলারই মাস্ক পরে ট্রেনিং সেন্টারে হাজির হন। তবে মাস্ক ছাড়াও কয়েকজনকে দেখা যায়। যদিও প্রথমদিন কোনও অনুশীলন নয়, স্বাস্থ্যপরীক্ষার পরই ছেড়ে দেওয়া হয় ফুটবলারদের।

রবার্তো, রাকিটিচের পর একে একে হাজির হন আর্তুরো ভিদাল, আন্তোনিও গ্রিজম্যান, ক্লিমেন্ট লেংলেট, লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজরা। বড় সংখ্যায় পুলিশকর্মীও উপস্থিত ছিলেন সংবাদমাধ্যমের সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বজায় রাখতে। সবশেষে মাস্ক না পরেই হাজির হন তারকা ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে। কোচ কিকে সেতিয়েন মাস্কের পাশাপাশি গ্লাভস পরে হাজির হন বার্সার ট্রেনিং কমপ্লেক্সে।

Real

রিয়াল মাদ্রিদও ফুটবলারদেরকে ট্রেনিং কমপ্লেক্সে আসার কথা বলা হয়েছিল। করিম বেনজেমা, লুকা মদ্রিচদের কোভিড-১৯ পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছিল আগেই। তবু এদিন ক্লাবের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যপরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। সবার প্রথমে উপস্থিত হন ফরাসি স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। এরপর একে একে ইডেন হ্যাজার্ড, নাচো, হামেস রদ্রিগেজ, গ্যারেথ বেল, মার্সেলো, ড্যানি কার্ভাহালরা হাজির হন।

রিয়ালের ট্রেনিং গ্রাউন্ড ভালদেবাবেসে ফুটবলারদের কিছু সময়ের জন্য কোচ জিদানের সঙ্গে কথা বলার অনুমতি দেয়া হয়। তবে, সেটা করা হয় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখেই।

উল্লেখ্য, গত ২৮ এপ্রিল স্পেনের লকডাউন শিথিল করার ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো স্যানচেজ। একইসঙ্গে ফুটবলারদের অনুশীলনে ফেরার অনুমতিও দেন স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রী। তবে অনুশীলনের ক্ষেত্রে তিনি কয়েকটি ধাপ মেনে চলার নির্দেশ দেন ক্লাব এবং ফুটবলারদের। সেই নির্দেশ মেনেই কোচ, ফুটবলার, সাপোর্ট স্টাফদের স্বাস্থ্যপরীক্ষার ব্যবস্থা শুরু করল লা-লিগা ক্লাবগুলি।