করোনা : দুই দিনের বেতন দেবেন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা

করোনা : দুই দিনের বেতন দেবেন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা
  • 1
    Share

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) শিক্ষকরা দুই দিনের বেতন দেবেন। এর মধ্যে এক দিনের বেতন দেবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের। আরেক দিনের বেতন দেশের অসহায় মানুষের প্রয়ােজনে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে দেয়া হবে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণে বাংলাদেশে সংকটময় পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সতর্কতার অংশ হিসেবে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও অফিস-আদালত বন্ধ রয়েছে। এর ফলে দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে দেখা দিয়েছে আর্থিক সংকট। অনেক অসচ্ছল পরিবারের সন্তান জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন, যারা টিউশনিসহ বিভিন্ন খণ্ডকালীন কাজে যুক্ত থেকে পড়ালেখার খরচ নির্বাহ করেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে তাদের উপার্জনের সব ক্ষেত্র বন্ধ রয়েছে এবং অনেকের পরিবারের সদস্যরাও বেকার সময় অতিবাহিত করছেন। ফলে জীবন নির্বাহ করা হয়ে পড়েছে কষ্টসাধ্য।

এমতাবস্থায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষকদের সাথে একাধিক অনলাইন আলােচনার মধ্য দিয়ে দুই দিনের বেতন কর্তনের বিষয়ে একমত পােষণ করেন। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এইচ এম মােস্তাফিজুর রহমান অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য এক লাখ টাকা বরাদ্দ দেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৩টি বিভাগের ২৩০ জন অসচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে এই অর্থ বণ্টন করা হবে।

রোববার (২৬ এপ্রিল) জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মােবাইল ব্যাংকিংয়ে একজন শিক্ষার্থীকে অর্থ সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে এই কার্যক্রম উদ্ধোধন করেন। তখন উপাচার্য বলেন, এটি একটি অসাধারণ ও মহতি উদ্যোগ। শিক্ষার্থীদের প্রয়ােজনে শিক্ষকদের এই সহায়তা নিশ্চয়ই একটি বিরল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি মাে. নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শাহজাদা আহসান হাবীব এবং কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যবৃন্দ।

সাধারণ সম্পাদক শাহজাদা আহসান হাবীব বলেন, শিক্ষার্থীরা আমাদের সন্তান কিংবা ছোট ভাই-বােন। এই দুর্যোগে তারা ভালাে থাকুক, সুস্থ থাকুক, এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির সভাপতি মাে. নজরুল ইসলাম বলেন, এ দেশের খেটে-খাওয়া মানুষের টাকায় চলে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়। ফলে তাদের জন্যও কিছু করা আমাদের মানবিক দায়িত্ব ও কর্তব্য।

এই সংকটময় সময়ে সহায়তার হাত প্রসারিত করায় শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানানো হয়।

আহসান হাবীব/জেডএ/জেআইএম