জার্মানিতে বিধিনিষেধ ও কড়াকড়ির মেয়াদ বাড়ল ১০ মে পর্যন্ত

জার্মানিতে বিধিনিষেধ ও কড়াকড়ির মেয়াদ বাড়ল ১০ মে পর্যন্ত
  • 3
    Shares

জার্মানিতে বিধিনিষেধ ও কড়াকড়ির মেয়াদ আগামী ১০ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজ্যপ্রধানদের সঙ্গে আলোচনার পর এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল। এছাড়া বিধিনিষেধ শিথিল করার বিষয়ে আগামী ৬ মে রাজ্যপ্রধানদের সঙ্গে পুনরায় আলোচনায় বসবেন আঙ্গেলা ম্যার্কেল।

সংবাদ সম্মেলনে জার্মান চ্যান্সেলর জোর দিয়ে বলেন, পুরো জার্মানিতে আমাদের একটাই কৌশল, আর তা হলো করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধ করা। তাই সকল ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং পরিষ্কার-পরিচ্ছনতার দিকগুলো গুরুত্ব দিতে হবে।

ম্যার্কেল বলেন, এই মুহূর্তে রেস্তোঁরা খুলে দেয়া সমস্যা হয়ে দেখা দেবে। কারণ রেস্তোঁরায় শুধু এক পরিবার থেকে নয় বরং বিভিন্ন পরিবারের লোকজন আসে।

ম্যার্কেল ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আজকের সিদ্ধান্তকে একটি ‘মধ্যবর্তী পদক্ষেপ’ হিসেবে বর্ণনা করে বলেছেন, আগামী সপ্তাহে আরও পদক্ষেপের ঘোষণা করা হবে।

আগামী ৪ মে থেকে দেশজুড়ে কিছু বিধিনিষেধ শিথিল করার সিদ্ধান্ত সপ্তাহ দুয়েক আগেই নেয়া হয়েছিল। আপাতত তাতে কোনো উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন করা হয়নি। তবে সামাজিক দূরত্বসহ কিছু কড়াকড়ির মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ অর্থাৎ ১০ মে পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেডারেল ও রাজ্য সরকার।

গির্জা-মসজিদসহ অন্যান্য উপাসনালয় খোলার বিষয়ে রাজ্য সরকার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। শিশুদের প্লে-গ্রাউন্ড, চিড়িয়াখানা ও মিউজিয়ামও ধাপে ধাপে খোলা হবে। তবে সব ক্ষেত্রেই সামাজিক দূরত্ব রক্ষা করে চলতে হবে। তবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সভা, সমাবেশ, সেমিনারসহ সকল বড় বড় ইভেন্ট নিষিদ্ধ থাকবে দেশটিতে।

এছাড়াও গত বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাশ বিশ্বব্যাপী ভ্রমণের সতর্কতা আগামী ১৪ জুন পর্যন্ত বহাল থাকবে বলে জানিয়েছেন।

এদিকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৬৩ হাজার ৯ জন এবং মারা গেছেন ছয় হাজার ৬২৩ জন।