নেত্রকোনায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত, নারীসহ আহত ২২

নেত্রকোনায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত, নারীসহ আহত ২২
  • 1
    Share

 

এক কৃষকের গরু অন্য এক কৃষকের শসাক্ষেত নষ্ট করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে আবুল বাশার (৩৩) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের নারীসহ আহত হয়েছেন অন্তত ২২ জন।

আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় লিটন মিয়া (৩০), আজিজুল ইসলাম (৪০), হক মিয়া (৩৫), আব্দুল মান্নান (৩৫), রাশিদা বেগমসহ (৪৫) পাঁচজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া বাকিদের স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (৪ মে) সন্ধ্যায় পূর্বধলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ তৌহিদুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সদর সার্কেলের এএসপি মোর্শেদা খাতুন ও আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ঘটনায় অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকালে জেলার পূর্বধলা উপজেলার বাড়হা পশ্চিমপাড়া এলাকার কৃষক মঞ্জুরুল হকের শসাক্ষেত নষ্ট করছিল একই এলাকার কৃষক নওয়াব আলীর একটি গরু। পরে গরুটি মঞ্জুরুল হক গরুর মালিক নওয়াব আলীর বাড়িতে বেঁধে রেখে চলে আসেন।

নওয়াব আলীর ছেলেরা গরুটি কেন বাড়িতে বেঁধে রাখা হয়েছে জানতে গেলে মঞ্জুরুল হকের লোকদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে। এতে দু’পক্ষের নারীসহ অন্তত ২৩ আহত হন। পরে আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে গুরুতর ৬ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। দুপুর ১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবুল বাশার মারা যান। নিহত আবুল বাশার মঞ্জুরুল হকের ভাতিজা।

এদিকে আবুল বাশারের মৃত্যুর সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে নিহতের লোকজন প্রতিপক্ষের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে।