মহাস্থানে নামিয়ে দেয়া সেই করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন

মহাস্থানে নামিয়ে দেয়া সেই করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন

টানা ২৬ দিন মরণঘাতী করোনার সঙ্গে যুদ্ধ শেষে নিজ বাড়িতে ফিরেছেন রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্করিণী ইউনিয়নের জানকি ধাপের হাট এলাকার শাহ আলম (৫৫)।

বগুড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টায় তিনি নিজ বাড়িতে ফেরেন। শাহ আলমসহ ওই পরিবারের সাত সদস্য বর্তমানে সুস্থ আছেন বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর সিভিল সার্জন ডা. হিরম্ব কুমার রায়।

এর আগে ঢাকা থেকে ট্রাকযোগে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে গত ২৯ মার্চ ভোরে বগুড়ায় পৌঁছে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন শাহ আলম। করোনা সন্দেহে ট্রাকচালক মহাস্থানগড় এলাকায় তাকে নামিয়ে দেন। পরে স্থানীয় এক সাংবাদিকের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ শাহ আলমকে উদ্ধার করে প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের করোনা আইসোলেসন ইউনিটে তাকে ভর্তি করা হয়। পরে আইইডিসিআর থেকে তার নমুনা নিয়ে পরীক্ষা করা হলে করোনা ধরা পড়ে।

এদিকে শাহ আলমের করোনা শনাক্ত হওয়ায় তার বাড়িসহ আশেপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন এবং তার সংস্পর্শে আসায় জামাই হাসান আলী ও স্ত্রী সাজেদা বেগমসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের নমুনা নিয়ে পরীক্ষা করা হয়। এতে কারও করোনা শনাক্ত হয়নি। শাহ আলম রাজধানীর কারওয়ান বাজারে কাজ করেন।

সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায় জানান, বগুড়ায় ২৬ দিন চিকিৎসাধীন থেকে বাড়ি ফিরেছেন শাহ আলম। তিনিসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা ভালো আছেন। এ নিয়ে এখন আর আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। শনিবার (২৫ এপ্রিল) ওই পাড়ায় যে কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে তা প্রত্যাহার করা হবে।

জীতু কবির/এমএএস/পিআর