মানবতার জননী সত্য বলছি করোনায় পরিবারকে নিয়ে কষ্টে দিন যাপন করছি

  • 47
    Shares
প্রতিনিধি. ” মোঃ শাহিন আলম।
লেখক..”-এম এ মামুন বাবুল
বাংলাদেশে ৮ মার্চ প্রথম করোনার সনাক্ত হয়। করোনাভাইরাস প্রার্দুভাবে ১৭মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়। অদ্যবদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে। সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা করোনা বন্ধকালীন বেতনভাতা পরিশোধ করলেও বিপাকে পড়েন আদা সরকারি সাহিত্য শাসিত এবং ব্যক্তি মালিকানাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা। এখনো মার্চ-মে মাসের বেতন পরিশোধ করেনি কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মালিকরা।
এতে কিছু শিক্ষক পরিবারকে নিয়ে পড়েন মহাবিপদে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নানা প্রনোদনা প্যাকেজ ও ত্রাণ দিলেও তা জোটেনি কিছু শিক্ষক পরিবারের ভাগ্যে! আত্মমর্যাদার কারণে তারা চাইতেও পারেনি, কইতেও পারেনি। সামান্য বেতন-টিউশনির টাকা দ্বারা চলত পরিবারকে নিয়ে। তাও এখন বন্ধ। দুর্বিষহ চলছে জীবন-যাপন! বলাযেতে পারে যে আমি আইডিয়েল স্কুল এন্ড কলেজ নারায়ণগঞ্জ এর সহকারী শিক্ষক পদে দীর্ঘ দিন যাবত নূন্যতম বেতনে কর্মরত। সেই সামান্য বেতন আর নামমাত্র দু’একজনের টিউশনির টাকা দ্বারা কোনোও মতে চলতো আমার সংসার। করোনাকালে তাও এখন বন্ধ। মার্চ-মে মাস পর্যন্ত কোনো বেতনভাতাও পরিশোধ করেনি স্কুল কর্তৃপক্ষ।
নিরুপায় হয়ে ধারদেনা করে কোনো মতে চলে আমার সংসারের চাকা। সরকার বা স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছ হতে পাইনি কোনোও অর্থনৈতিক সাহায্য সহযোগিতা।
বাসাভাড়া পরিশোধ করতে খেতে হচ্ছে হিমশিম। এমতাবস্থায় পরিবারকে নিয়ে ভাড়াবাসায় খুব মানবেতর জীবন-যাপন করছি। অদ্যবদি স্কুল মালিক করোনা কালীনে বেতন পরিশোধ করতে অপরাগতা প্রকাশ করেছেন। স্কুল থেকে সরকারি অনুদানের জন্য শিক্ষক তালিকা ফতুল্লা উপজেলায় জমা হলেও এপর্যন্ত মিলেনি কোনোও অনুদান।
কাজেই পরিবারকে নিয়ে পথেবসার উপক্রম প্রায়। এমন কঠিন অবস্থার মধ্যেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রীর প্রতি আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি। যাহাতে কিছু সরকারি অনুদান পেলে অন্তত পরিবারকে নিয়ে কোনোও মতে বেঁচে থাকতে পারি। তাই ‘মানবতার জননী সত্য বলছি পরিবারকে নিয়ে কষ্টে দিন যাপন করছি’! মানবতার জননী’র দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।