মৃগী রোগে ভুগছিলেন উমর আকমল

মৃগী রোগে ভুগছিলেন উমর আকমল
  • 4
    Shares

পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান উমর আকমলের ব্যাপারে বের হচ্ছে একের পর এক অদ্ভুত তথ্য। কয়েকদিন আগেই তিনি ফিক্সিংজনিত কারণে ক্রিকেট থেকে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন। এরপর থেকেই চলছে নানান আলোচনা।

আরেক সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জুলকারনাইন হায়দার অভিযোগ করেছেন ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট চলাকালীন সময়েই ইচ্ছে করে খারাপ খেলার কথা বলেছিলেন উমর। যদিও এর পক্ষে যথেষ্ঠ প্রমাণাদি নেই।

তবে এবার খেলার বাইরে উমরের শারীরিক ফিটনেস নিয়েই নতুন এক তথ্য দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি। তিনি জানিয়েছেন, কয়েক বছর আগেও মৃগী রোগে ভুগছিলেন উমর এবং সেসময় চিকিৎসা নিতেও আপত্তি জানিয়েছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

২০১৩ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত সময়ে পিসিবি চেয়ারম্যান ও কার্যনির্বাহী কমিটির শীর্ষ পদে ছিলেন নাজাম শেঠি। নিজের কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতা থেকেই এক টিভি অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের কাছে মেডিকেল রিপোর্ট ছিল যে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের সময় উমর আকমল মৃগী রোগে ভুগছে। তাই আমরা তাকে সে সফর থেকে ফেরত আনার জন্য ডেকে পাঠাই। আমি তার সঙ্গে দেখা করে বলি যে, এটা গুরুতর অসুখ। তোমার এখন বিরতি নেয়া উচিৎ। কিন্তু সে এটা মানতে রাজি ছিল না। মানসিকভাবে কিছুতেই প্রস্তুত ছিল না।’

তবে ঠিকই দুই মাসের জন্য বিশ্রামে পাঠানো হয়েছিল আকমলকে। নাজাম শেঠি আরও বলেন, ‘তবু আমি তাকে দুই মাসের জন্য খেলতে দেইনি এবং মেডিকেল রিপোর্ট নির্বাচক-কোচের কাছে পাঠিয়ে দেই। তাদের কাছে হস্তক্ষেপ করা আমার ঠিক মনে হচ্ছিল না। তবু আকমল কিছুতেই মানতে রাজি ছিল না এবং নিয়মশৃঙ্খলার কোন তোয়াক্কাও করতে রাজি ছিল না।’

এদিকে এখন তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা পাওয়ায়, নাজাম শেঠি আশঙ্কা করছেন উমর আকমলের ক্যারিয়ারই শেষ হয়ে যাবে। তিনি বলেন, ‘আমি ভয় পাচ্ছি তার ক্যারিয়ারই না শেষ হয়ে যায়। তবে এ শাস্তিটা তার প্রাপ্যই ছিল। কেননা কখনওই নিয়মকানুনের তোয়াক্কা করেনি সে।’