যে ৫ ক্রিকেটার দেশের হয়ে অন্য খেলাও খেলেছেন

যে ৫ ক্রিকেটার দেশের হয়ে অন্য খেলাও খেলেছেন
  • 1
    Share

আধুনিক ক্রিকেটে ফিটনেসটা অনেক বড় ব্যাপার। ক্রিকেটারদের এখন ফিটনেস ঠিক রাখতে ফুটবলার, রাগবি খেলোয়াড় কিংবা দৌড়বিদ হতে হয় সময়ে সময়ে। অনুশীলনের সময় বিভিন্ন খেলায় নিজেদের প্রস্তুত করেন তারা।

কিন্তু পেশাদারিত্ব আলাদা ব্যাপার। কোনো ক্রিকেটার তো আর অবসর সময়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল খেলতে নেমে যান না! আর সবার জন্য সব খেলা সম্ভবও নয়। তবে এমন অনেক ক্রিকেটার আছেন যারা কিনা ক্রিকেট শুরুর আগে দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন অন্য খেলাতেও। চলুন দেখে নেয়া যাক সব্যসাচী এমন পাঁচজন ক্রিকেটারকে…

rhodes

১. জন্টি রোডস (দক্ষিণ আফ্রিকা)
জন্টি রোডসের নামটি শুনলেই সবার চোখে ভেসে উঠে বিদ্যুৎ গতির ফিল্ডিং। সর্বকালের সেরা ফিল্ডারদের একজন এই প্রোটিয়া, ক্রিকেটার হিসেবে ছিলেন বেশ বিখ্যাত।

অনেকেই হয়তো জানেন না, এই রোডস একটা সময় দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে হকি খেলেছেন। এমনকি ১৯৯২ সালের অলিম্পিক দলেও ছিলেন তিনি। যদিও হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটের কারণে শেষতক খেলতে পারেননি।

এই রোডসই ক্রিকেটার হিসেবে এক দশকের ক্যারিয়ারে দেশের হয়ে ৫২টি টেস্ট এবং ২৪৫টি ওয়ানডে খেলেছেন।

chahal

২. ইয়ুজবেন্দ্র চাহাল (ভারত)
লেগস্পিনে মাঠ মাতানোর আগে ভারতের হয়ে দাবা খেলেছেন ইয়ুজবেন্দ্র চাহাল। চাহালের ক্রিকেটার হিসেবে পরিচিতি আইপিএল দিয়েই। রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর (আরসিবি) হয়ে দুরন্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে তিনি ঢুকে পড়েছেন ভারতের জাতীয় দলে।

সীমিত ওভারের দলে এই লেগস্পিনার অধিনায়ক বিরাট কোহলির প্রথম পছন্দ। চাহালই একমাত্র খেলোয়াড় যিনি ভারতকে ক্রিকেট ও দাবা দুই খেলায় প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

bates

৩. সুজি বেটস (নিউজিল্যান্ড)
নিউজিল্যান্ড নারী দলের সাবেক অধিনায়ক সুজি বেটস ক্রিকেটে পূর্ণকালীন ক্যারিয়ার শুরুর আগে ছিলেন একজন বাস্কেটবল খেলোয়াড়। ২০০৮ সালের বেইজিং অলিম্পিকে নিউজিল্যান্ড বাস্কেটবল দলের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি।

মাত্র ১৫ বছর বয়সে ক্রিকেট ক্যারিয়ার শুরুর পর দেশের হয়ে অনেক অর্জন আছে সুজি বেটসের।

perry

৪. এলিসা পেরি (অস্ট্রেলিয়া)
ক্রিকেট দুনিয়ার হার্টথ্রব অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার এলিসা পেরি একটা সময় ফুটবল মাঠ কাঁপিয়েছেন। ২০০৮ সালের এশিয়া কাপে অস্ট্রেলিয়া ফুটবল দলের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি। শুধু তাই নয়, তিনটি আন্তর্জাতিক গোলও আছে তার।

ক্রিকেট শুরুর পর সব ফরমেটে অস্ট্রেলিয়া দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে গেছেন এই সুন্দরী।

vuiren

৫. রুডি ভন ভুইরেন (নামিবিয়া)
দক্ষিণ আফ্রিকায় ২০০৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ যারা দেখেছেন, তাদের অনেকেরই হয়তো মনের মধ্যে গেঁথে আছে চেহারাটি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে এক ওভারেই ২৮ রান তুলে চমকে দিয়েছিলেন ভুইরেন।

অথচ তিনি পেশায় একজন চিকিৎসক। সব্যসাচী এই ক্রিকেটার নামিবিয়ার হয়ে রাগবিও খেলেছেন। মজার তথ্য হলো, নামিবিয়ার হয়ে একই বছরে দুই খেলার দুই বিশ্বকাপে অংশ নেয়ার বিরল কীর্তি তার দখলে।