রাজশাহীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ৩৫ মামলা, জরিমানা আদায়

রাজশাহীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ৩৫ মামলা, জরিমানা আদায়
  • 1
    Share

চলমান করোনা পরিস্থিতিতে প্রতিদিনই রাজশাহীজুড়ে বিশেষ অভিযান চালাচ্ছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল রোববার রাজশাহী নগরী ও জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩৫টি মমালা দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জরিমানা আদায় হয় ৬৯ হাজার ২০০ টাকা। সড়ক পরিবহন আইন ও ভোক্তা অধিকার আইনে এসব মামলা হয়।

সোমবার জেলা প্রশাসনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

তাতে জানানো হয়, নগরীর বহরমপুর, বন্ধগেট, বুলনপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার কাউছার হামিদ। তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে একজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করে ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

নগরীর সাহেববাজার, বোসপাড়া, বিনোদপুর এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনা আরাফাত আমান আজিজ। তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৯ জনের বিরুদ্ধে ৯টি মমালা করে ২৪ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

নগরীর রেলগেট, শিরোইল কলোনী, চন্দ্রিমা এলাকায় সহকারী কমিশনার রিফাত আরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৩ জনের বিরুদ্ধে ৩টি মমলা করে ১ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

অপরদিকে জেলার দুর্গাপুর উপজেলায় ভ্রামাম্যণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার তারিকুল ইসলাম। তিনি সরকারি নির্দেশ অমান্যকরণের জন্য ২ জনের বিরুদ্ধে ২টি মামলা করে ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

বাগমারা উপজেলায় সহকারী কমিশনার রিফাতুল ইসলাম ভ্রাম্যমাণ আাদালত পরিচালনা করেন। তিনি সরকারি নির্দেশ অমান্যকরণের জন্য ৬ জনের বিরুদ্ধে ৬টি মামলা করে ১৫ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

তানোর উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার নাজমুল হুসাইন। তিনি ৮ জনের বিরুদ্ধে ৮টি মমালা করে ৫ হাজর ২০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

মোহনপুর উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনাপর লিটন দে। তিনি সরকারি নির্দেশ অমান্যকরণের জন্য একজনের বিরুদ্ধে ১টি মামলা করে ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

বাগামারা উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নিবার্হী কর্শকর্তা শরিফ আহম্মেদ। তিনি সরকারি নির্দেশ অমান্যকরণের জন্য ৫ জনের বিরুদ্ধে ৫টি মামলা করে ৫ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

গোদাগড়ী উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার ইমরানুল হক। সংক্রমণ, প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ আইনে ১ জনের বিরুদ্ধে ১টি মমালা করে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

ফেরদৌস/এমএএস/পিআর