সাংবাদিক কাজল নিখোঁজের তথ্য জনসম্মুখে প্রকাশের দাবি

সাংবাদিক কাজল নিখোঁজের তথ্য জনসম্মুখে প্রকাশের দাবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধনসহ সাংবাদিক কাজলের নিখোঁজ হওয়ার তথ্য জনসম্মুখে উন্মোচন করার দাবি জানিয়েছে সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি। পাশাপাশি এসব ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবিও জানানো হয়েছে।

বিভিন্ন ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপপ্রয়োগ ও ফটোসাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে উদ্ধার করার পরে পিছমোড়া করে হাতকড়া পরানোয় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে এক বিবৃতিতে এ দাবি জানিয়েছে ৬৮টি নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠনের প্ল্যাটফর্ম ‘সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি’।

সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির পক্ষে বৃহস্পতিবার (৭ মে) বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম এবং সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা গভীর বিস্ময়ের সাথে লক্ষ্য করলাম যে, নিখোঁজের ৫৪ দিন পর ফটোসাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলকে উদ্ধার করে পিছমোড়া করে হাতকড়া পরিয়ে হাজতে ঢুকানো হলো। বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসে একজন ফটোসাংবাদিকের ওপর এই রকম অনভিপ্রেত আচরণ ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনাসহ বিভিন্নভাবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপপ্রয়োগের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে ও ক্ষোভ প্রকাশ করছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি এ ঘটনার পুনরাবৃত্তিরোধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধনসহ সাংবাদিক কাজলের নিখোঁজ হওয়ার তথ্য জনসম্মুখে উন্মোচন করা এবং এই ঘটনার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছে।

সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির তালিকাভু্ক্ত সংগঠনগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, আইন ও সালিশ কেন্দ্র, স্টেপস টুয়াডর্স ডেভেলপমেন্ট, বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ, ব্র্যাক, উইমেন ফর উইমেন, কেয়ার বাংলাদেশ, কর্মজীবী নারী, জাতীয় শ্রমিক জোট, কনসার্ন ওয়ার্ল্ড ওয়াইড, আইইডি, বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি, নিজেরা করি, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন, ঢাকা ওয়াইডব্লিউসিএ, পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশন, অক্সফাম জিবি, অ্যাকশন এইড বাংলাদেশ, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ, আওয়াজ ফাউন্ডেশন, প্রিপ ট্রাস্ট, এডিডি বাংলাদেশ, ওয়ার্ল্ড ভিশন, গণসাক্ষরতা অভিযান, নাগরিক উদ্যোগ, প্রতিবন্ধীনারীদের জাতীয় পরিষদ, সারি, বাউশি, পাক্ষিক অনন্যা, এসিডি রাজশাহী, ব্রতী, নারী মৈত্রী, ওয়েভ ফাউন্ডেশন, ইক্যুয়িটি অ্যান্ড জাস্টিস ওয়ার্কিং গ্রুপ, বাংলাদেশ নারীসাংবাদিক কেন্দ্র, নারী উদ্যোগ কেন্দ্র, জাতীয় নারী শ্রমিক জোট, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, জাতীয় নারী জোট, শক্তি ফাউন্ডেশন, বিপিডব্লিউ ক্লাব, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, এসিড সারভাইভার্স ফাউন্ডেশন, নারী মুক্তি সংসদ, সেবা নারী ও শিশুকল্যাণ কেন্দ্র, ডিআরআরএ, জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরাম, হিল উইমেন্স ফেডারেশন, আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম, বাংলাদেশ ফেডারেশন অব ইউনিভার্সিটি উইমেন, সরেপটেমিস্ট ইন্টারন্যাশন্যাল ক্লাব, আরডিআর এস, বিল্স, এডাব, এফপিএবি, ওয়াইডাব্লিউসিএ অব বাংলাদেশ, দলিতনারী ফোরাম, দীপ্ত এ ফাউন্ডেশন ফর জেন্ডার অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, অপরাজেয় বাংলাদেশ, ব্লাস্ট, টার্নিংপয়েন্ট, সেন্টার ফর মেন অ্যান্ড মেসকুলিনিটিজ স্টাডিস, সেভ দ্য চিলড্রেন ও অভিযান।