Best Payment Service ফ্রিল্যান্সারদের জন্য

Best Payment Service ফ্রিল্যান্সারদের জন্য

ফ্রিল্যান্সারদের জন্য Best Payment Service। আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন অথবা ফ্রিল্যান্সার হওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে থাকেন তাহলে আজকের আর্টিকেল টি আপনার জন্য।

আজকে আমি আলোচনা করবো ফ্রিল্যান্সারদের জন্য Best Payment Service এমন একটি Best Payment Service অপশন নিয়ে যেটার মাধ্যমে আপনি আপনার কষ্টার্জিত টাকা খুব সহজেই নিয়ে আসতে পারবেন আপনার বিকাশ বা ব্যাংক একাউন্ট এর মাধ্যমে। শুধু তাই নয় আপনার যদি ডলার এর প্রয়োজন হয় তাহলে খুব সহজেই এই ওয়েবসাইট টি ব্যবহার করে বিকাশের মাধ্যমে কিনতে পারবেন প্রয়োজন অনুযায়ী ডলার।

ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সবচেয়ে কষ্টের সময় হল কাজ করার পরও পেমেন্ট নিতে না পারা। বাংলাদেশ হতে বিদেশি ক্লাইন্টের পেমেন্ট নিতে হলে একমাত্র লিগ্যাল প্রোসেস হল পেয়নর একাউন্ট। তবে পেয়নর একাউন্টেও পোহাতে হয় অনেক ঝামেলা। পেয়নর একাউন্ট থেকে ক্লাইন্ট কে পেমেন্ট রিকুয়েষ্ট করে পেমেন্ট নেওয়ার পর অপেক্ষা করতে হয় ২ থেকে ৫ দিন অনেক সময় ১০ দিনও লেগে যায়। আবার অনেক সময় অপেক্ষা করতে করতে দেখা যায় পেমেন্ট ক্যান্সেল হয়ে যায়। ক্লাইন্ট পেয়নর এর এডিশনাল ইনফরমেশন সঠিক সময় সাবমিট না করার কারণে পেমেন্ট রিফান্ড হয়ে আবার ক্লাইন্টের একাউন্টে চলে যায়। সেক্ষেত্রে অনেক সময় ক্লাইন্ট ভাল হলে পুনরায় রিকুয়েষ্ট করে পেমেন্ট নেওয়া যায় তবে বেশির ভাগ সময় ক্লাইন্ট পুনরায় পেমেন্ট দিতে রাজি হন না করেন বিভিন্ন তালবাহানা। বাংলাদেশের বেশির ভাগ ফ্রিল্যান্সার এই সমস্যাটায় পরেন।

আবার অনেক ফ্রিল্যান্সার আছেন যারা ফেইক ইনফরমেশন দিয়ে পেপাল একাউন্ট খুলে ক্লাইন্টের কাছ থেকে পেমেন্ট নিয়ে থাকেন। ফেইক ইনফরমেশন দিয়ে একাউন্ট খুলে হয়তো কিছুদিন ব্যবহার করতে পারেন তবে পেমেন্ট উইথড্র করতে গেলে পরেন আরেক সমস্যায়। ফেইক ইনফরমেশন দিয়ে করা পেপাল একাউন্ট নিজের মাস্টারকার্ড বা ব্যাংক একাউন্ট এড না করতে পেরে অনেক সময় হারাতে হয় অনেক কষ্টার্জিত ডলার সহ পেপাল একাউন্ট।

আমরা অনেক সময় অনলাইনে অনেক সুন্দর সুন্দর প্রোডাক্ট দেখি যেগুলো কিনতে হলে প্রয়োজন হয় ডলার বা ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট করার জন্য মাস্টারকার্ড অথবা ভিসা কার্ড। আমাদের অনেকেরই মাস্টারকার্ড বা ভিসা কার্ড আছে কিন্তু সেই মাস্টারকার্ড বা ভিসা কার্ড ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট একসেপ্ট না করার কারণে পেমেন্ট করা সম্ভব হয় না। যে কারণে অনেক সময় পছন্দের পণ্য টি আর কেনা হয় না। আপনার সাথেও যদি এমনটা হয়ে থাকে তাহলে আজকের এই আর্টিকেল টি পরে খুলে ফেলুন একটি ইন্টারন্যাশনাল একাউন্ট।

এই একাউন্টের মাধ্যমে আপনি আপনার পেপাল, পেয়নর, স্ক্রিল ও নেটেলার ইত্যাদি সকল প্রকার ফিন্যালসিয়াল একাউন্ট হতে ডলার কে টাকায় রূপান্তর করে নিয়ে আসতে পারবেন আপনার বিকাশ বা ব্যাংক একাউন্টে। এছাড়াও আপনার যদি অ্যামাজন, আলিবাবা অথবা ইন্টারন্যাশনাল যেকোনো মার্কেট প্লেস হতে কোন কিছু কেনাকাটা করার জন্য ডলার প্রয়োজন হয় তাহলে খুব সহজেই আপনি আপনার বিকাশ একাউন্ট হতে টাকা খরচ করে ডলার কিনে নিতে পারবেন। শুধু এটাই নয়, নিতে পারবেন ইন্টারন্যাশনাল ভার্চুয়াল মাস্টার কার্ড। যেটার মাধ্যমে করতে পারবেন যে কোন ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট। আমরা যারা ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কাজ করি তাদের সবচেয়ে বড় একটা সমস্যা ফেসবুক বা টুউটারে এড রান করতে গিয়ে ডলার এড করা। ফেসবুকে ইদানিং নতুন পেয়নর কার্ড এড হয় না। আবার পেয়নর কার্ড এড হলেও পড়তে হয় ডলার সংকটে। তবে আপনার যদি নতুন এই ওয়েবসাইটে একটি একাউন্ট থাকে তাহলে আর ডলার নিয়ে করতে হবে কোন চিন্তা। বিকাশের মাধমে যেকোন সময় করতে পারবে আপনার টাকা ডলারে রূপান্তর।

এখন আসি মূল টপিকে! এতোক্ষণ পড়ার পর নিশ্চয়ই আপনার মনে একটা প্রশ্ন জেগেছে যে, কি সেই Best Payment Service অপশন? হ্যা, আমি সেই Best Payment Service অপশন টির সাথে এখনি আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিব সেই সাথে বলে দিব কি করে খুলতে হবে একাউন্ট।

এটা হল মেক্সিকান ফাইন্যালসিয়াল ওয়েবসাইট airTM ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যালসিয়াল সার্ভিস প্রোবাডার। airTM ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যালসিয়াল সার্ভিস ওয়েবসাইট টি ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৮ সালে এই প্রতিষ্ঠান টি ১২০টিরও বেশি দেশে ৬৫০,০০০+ ট্রানজিকশন করে।

Trustpilot এ এই প্রতিষ্ঠানটির ৩৪৪৭ টি রিভিউ আছে। এভারেজে এই প্রতিষ্ঠানটির ৪.১ রেটিং আছে। রেটিং পড়তে চলে যান এই লিঙ্কেঃ https://www.trustpilot.com/review/airtm.io

আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন অথবা ফ্রিল্যান্সার পেশায় নিজেকে দাড় করাতে চান তাহলে এই ফাইন্যালসিয়াল সার্ভিস টি আপনার জন্য বেস্ট হবে। তাই দেরি না করে এখনি খুলে ফেলুন আপনার একাউন্ট টি।

একাউন্ট খুলতে যা যা লাগবে।

  1. একটি ইমেইল একাউন্ট।
  2. মোবাইল নাম্বার
  3. জাতীয় পরিচয় পত্র অথবা পাসপোর্ট
  4. বিকাশ বা ব্যাংক একাউন্ট (অপশনাল)

একাউন্ট খুলতে চলে যান এই লিনকেঃ https://lnkd.in/gBtbgRa

  • ওয়েবসাইটে গিয়ে Join বাটনটি ক্লিক করুন।
  • আপনার ইমেইল এড্রেস টি দিন
  • আপনার ফাস্ট নেম ও লাস্ট নেম দিন।
  • একটি স্ট্রোং পাসওয়ার্ড দিন। পাসওয়ার্ড অবশ্যই মিস ওয়ার্ড দিয়ে দিবেন যেমন- [email protected]#tuMi
  • Next বাটন টি তে ক্লিক করুন।
  • এবার ডেসবোর্ড হতে কনফার্ম ইমেইল বাটন টি তে চাপুন।
  • আপনার ইমেইল লগইন করুন
  • airTM ইমেইল টি অপেন করুন।
  • কনফার্ম ইমেইল বাটন টি তে ক্লিক করুন
  • ইমেইল কনফার্ম হলে প্রোফাইল ইডেট করুন।
  • সকল ইনফরমেশন সঠিক ভাবে দিবেন কোথাও যেন কোন ভুল না হয়।
  • এবার একাউন্ট ভেরিফাই করার জন্য ভেরিফাই নাউ বাটন টি তে ক্লিক করুন।
  • আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড টির সামনের সাইড ও পিছনের সাইড দিন। পাসপোর্ট হলে শুধু সামনের সাইড দিন।
  • কনফার্ম বাটন চেপে পরবর্তী অপশনে যান।
  • আপনার একটি সেলফি দিন। আবার কনফার্ম বাটন টি চাপুন।
  • এবার অপেক্ষা করুন airTM টিম আপনার ডকুমেন্টস গুলো ভেরিফাই করে একটি কনফার্মেশন ইমেইল দিবে।
  • ডকুমেন্টস কনফার্ম হওয়ার পর ইচ্ছে মত ট্রানজাকশন করুন।

আরো ভালভাবে বুঝতে আমার এই ভিডিও টি দেখুন।